পিরোজপুরে দুই সরকারী অডিটরকে গ্রেপ্তার করেছে দুদক

পিরোজপুরে প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের বিভিন্ন দপ্তর ও প্রতিষ্ঠান অডিট করতে আসা দু’জন অডিটরকে ৪ লাখ ১৬ হাজার নগদ টাকাসহ গ্রেফতার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সোমবার বিকেলে পিরোজপুরের স্থানীয় সরকার ও প্রকৌশলী অধিদপ্তরের রেষ্ট হাউজ থেকে অভিযান চালিয়ে তাদের ঘুষের টাকা গ্রেপ্তার করা হয়।  গ্রেপ্তারকৃতরা হলো  শিক্ষা, সংস্কৃতি ও ধর্ম বিষয়ক অডিট অধিদপ্তরের অডিট এন্ড একাউন্টাস অফিসার মো. শামীম হোসেন এবং এস.এ.এস সুপারিনটেনডেন্ট মো. জহির রায়হান।

 

এসময় গেষ্ট হাউজের রুমের মধ্যে ট্রাবেল ব্যাগ, ও বিছানার তোষকের নিচসহ বিভিন্ন স্থানে লুকায়িত অবস্থায় ১ হাজার ও ৫০০ টাকার কয়েকটি বান্ডিলের ৪ লাখ ১৬ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

 

দুদকের উপ-পরিচালক দেবব্রত মন্ডল জানান, গোপন সংবদের ভিত্তিতে সোমবার বিকেলে দিকে এলজিইডির গেষ্ট হাউজে অভিযান চালিয়ে এ টাকা উদ্ধার করা হয় এবং দুইজন অডিটরকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা পিরোজপুরের বিভিন্ন প্রাথমিক শিক্ষা অফিস থেকে ঘুষ নিয়েছেন।  গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন আইনের সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা দায়ের করে রাতে পিরোজপুর সদর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

 

দুদকের উপ-পরিচালক দেবব্রত মন্ডল আরো জানান,  জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস, জেলার ৭টি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস, পিটিআইসহ এ বিভাগের বিভিন্ন দপ্তরের গত অর্থ বছরের ব্যয়কৃত হিসাবের অডিট করার জন্য উক্ত দুই অডিটর গত রবিবার পিরোজপুরে আসেন এবং এলজিইডির গেষ্ট হাউজে উঠেন। তারা সোমবার পিরোজপুর সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসসহ জেলার তিনটি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে অডিট কার্যক্রম শুরু করেন।